মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:৩৬ পূর্বাহ্ন

অভিযান-১০ অগ্নিকাণ্ড নিহতদের পরিবারের এখনো শোকের মাতম।

দৈনিক আলোকিত প্রভাত / ৩৯ বার পঠিত
আপডেট সময় : বুধবার, ২৯ ডিসেম্বর, ২০২১, ৭:৪৭ অপরাহ্ণ

ইত্তিজা হাসান মনির, জেলা প্রতিনিধি বরগুনা
গত ২৩ ডিসেম্বর ঢাকা থেকে বরগুনা গামী অভিযান-১০ লঞ্চ অগ্নিকাণ্ড এখনো চলছে শোকের মাতম। বরগুনার বিভিন্ন গ্রামে আহত ও নিহতদের পরিবারের কান্না থামেনি। বরগুনা সদর উপজেলার জাহিদুল ইসলাম জাহিদ তার মা এবং স্ত্রী তমা দুই বছরের শিশুকে নিয়ে ঢাকা থেকে অভিযান ১০ লঞ্চের কেবিনে ফিরতে ছিল। শিশুটি ঘুমায়নি বলেই জাহিদের বেঁচে যাওয়া। সেদিনের ঘটনার কথা মনে করে জাহিদ এখনো কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন, জাহিদ বলেন আমি বেঁচে গেছি লঞ্চ থেকে ঝাঁপিয়ে পড়ে ছিলাম, কিন্তু মানুষের আহাজারী আমি চোখে দেখেছি। মৃত্যু কত যন্ত্রনা দায়ক সেটা আমি দেখতে পেরেছি আমি আমার শিশু নিয়ে নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়েছি, আমার স্ত্রী তমা আমার মাকে নিয়ে নদীতে পড়েছে আল্লাহর অশেষ রহমতে আমরা নদীতে ঝাঁপ দিয়ে বাঁচতে পেরেছি। আমার স্ত্রী এবং আমার মা সাঁতার জানে না কিভাবে যে আল্লাহ বাঁচিয়েছে বুঝতে পারছিনা।
তালতলী উপজেলার ছোট বগী ইউনিয়নের সোনিয়া (২২) তার বৃদ্ধ মা এবং দুই সন্তানসহ লঞ্চের ডেকে দ্বিতীয় তলার যাত্রী ছিল। আগুন লাগার পর ছয় মাসের শিশুকে নিয়ে নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল সোনিয়া। বৃদ্ধ মা এবং ৫ বছরের বাচ্চা লঞ্চের রেখেই নদীতে ঝাঁপ দিয়ে মা মা করে ডাকতে থাকে কিন্তু মা এবং বাচ্চা নদীতে ঝাঁপ দিতে পারিনি অথবা বলতে পারেনা তাদের কি অবস্থা । আজও পর্যন্ত তাদের কোনো সন্ধান পায়নি তাদের বাড়িতে সাংবাদিক হিসেবে আমরা গেলে কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে সোনিয়া


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

Theme Customized By Theme Park BD