1. admin@dailyalokitoprovat.com : admin :
শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ০৩:৩৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
কেশবপুরের মঙ্গলকোটে রংধনু আর্ট একাডেমির শুভ উদ্বোধন। বাকেরগঞ্জের এসিলেন্ট আবুজর মোঃ ইজাজুল হকের কারিশমায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ। বসতঘর থেকে কলেজ-ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার। রাজশাহীর মোহনপুরে প্রাইভেটকার ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ। কাহালু’র দূর্গাপুর ইউ পি নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত। প্রেমিক’র বিয়ের খবরে প্রেমিকার আত্নহত্যা । কাহালু উপজেলা চেয়ারম্যান সুরুজকে ফুলেল শুভেচ্ছা বিনিময়। হাইওয়ে যেন মরন ফাঁদ সাধারণ মানুষ হচ্ছে দুর্ঘটনার শিকার। নেত্রকোনার মগড়া নদীতে ভেসে আসা মাথাবিহীন লাশ উদ্ধার। চুকনগর বধ্যভূমি পরিদর্শন করেন ভারতীয় হাইকমিশনার শ্রী বিক্রম দ্রোয়াস্বামী।

অসৎগুণাবলী দূর করার আবশ্যকতা—

দৈনিক আলোকিত প্রভাত
  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৪ জুলাই, ২০২১
  • ৯১ বার পঠিত

মুফতি মোঃ শফিকুল ইসলাম সালেহী,বিশেষ প্রতিনিধিঃ-
আত্মিক রোগ বা অসৎ গুণাবলী দূর করার আবশ্যকতা যে কত বেশি তা একটু চিন্তা করলেই উপলব্ধি করা যাবে। আত্মা মানবদেহের রাজধানী ও দেহের চালিকাশক্তি। রাজধানী নিয়ন্ত্রণে থাকলে গোটা রাজ্যকে সহজেই পরিচালিত করা সম্ভব হয়;ইঞ্জিল ভালো হলে সামান্য নষ্ট বডির গাড়ি ও ভালো চলে। কিন্তু ইঞ্জিন নষ্ট হলে যত সুন্দর বডিই হোক কোন গতি পাবেনা। আত্মা বা রাজধানী রাযায়েলে ভর্তি থাকলে তা শয়তানের নিয়ন্ত্রণে চলে যায়। ইঞ্জিন হিসেবে কলব অচল হয় গেলে দেহ আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের পথে পরিচালিত হয় না। দৈহিক রোগ দৃশ্যমান হোক আর অদৃশ্যমান হোক তার যাতনা ব্যক্তি দেহে অনুভব করা মাত্রই অস্থির হয়ে পড়ে এবং দ্রুত নিরাময়ের জন্যে চিকিৎসকের স্বরণাপন্ন হয়। আর আত্মিক কু–রিপু সমূহ মুমিন বান্দার জন্যে আল্লাহ প্রাপ্তির পথে একটি অন্যতম প্রধান বাধা। এ ব্যাধি সমূহ হতে মুক্তি লাভের ব্যর্থ হলে ব্যক্তি নিশ্চিত ও ক্ষতিগ্রস্ত ও জাহান্নামের শাস্তির উপযোগী হয়। যে মু’মিন তার অন্তরে কু–রিপুগুলো পুষে রাখে এবং অন্তর দৃষ্টিসম্পন্ন হক্কানী পীরের দ্বারস্থ হয়ে তা নিরাময়ের ব্যবস্থা না করে,সে ব্যক্তির জন্যে চির ধ্বংস ছাড়া আর কিছুই নেই। কেননা ইন্দ্রিয় ঘটিত যাবতীয় মন্দ কাজগুলো যেরূপ হারাম তদপেক্ষা উক্ত বদ আখলাক বা মানসিক কু–রিপুগুলো অধিকতর মারাত্মক ক্ষতিকর (হারাম)। ইন্দ্রিয়ের সাহায্যে সম্পাদিত রোজা-নামাজ প্রভৃতি যাবতীয় ইবাদাত যেমন– ফরজ, উল্লেখিত কু–রিপু সমূহের বিনাশ সাধন করা তদপেক্ষা অধিকতর গুরুত্বপূর্ণ ফরজ। সুতরাং যে ব্যক্তি নিজেকে আল্লাহর পথে পরিচালিত করার ইচ্ছা করে তার জন্যে প্রথমে তাঁর ক্বলবকে সংশোধন করা তথা যাবতীয় কু–রিপু থেকে ক্বলবকে পরিষ্কার করা অত্যাবশ্যক। যেমন আল্লাহ তাআলা ইরশাদ করেন—
আর তোমাদের অন্তরে যা কিছু রয়েছে তা পরিষ্কার করা ছিল তাঁর কাম্য। (সূরা আলে ইমরান–১৫৪)
পবিত্র কুরআন ও হাদিসের আলোকে মাননীয় ফকিহ ও মুফাচ্ছিরীনগণ রাযায়েল বা মানসিক কু–রীপু সমূহকে দূর করা ফরজে আইন। সাব্যস্ত করেছেন। যেমন, প্রসিদ্ধ ফতোয়ার কিতাব “ফতোয়ায়ে শামী” তে উল্লেখ করা হয়েছে।
রাসূলে পাক (সাঃ) বলেছেন, নিশ্চয়ই আল্লাহ তোমাদের বাহ্যিক আকৃতির দিকে দৃষ্টিপাত করবে না; বরং তিনি তোমাদের কলবের দিকে দৃষ্টিপাত করবে। যে সমস্ত আমলের বিশুদ্ধতা ও পবিত্রতার ওপর ফরজে আইনগুলো যথাযথভাবে সম্পন্ন হওয়া নির্ভর করে, তাও শিক্ষা করা ফরজে আইন। (তাফসীরে মাযহারী চতুর্থ খন্ড ৩২৪ পৃষ্ঠা)।
হাদিসের প্রসিদ্ধ ব্যাখ্যাগ্রন্থ মিশকাতের প্রথম খন্ড ১৩৪ পৃষ্টায় আছে–ক্বলবের মন্দ আমল যেমন–অহংকার, ওজব, কপটতা, হিংসা, রিয়া, ইত্যাদি আখলাকে যামীমাহ তথা মন্দ গুণসমূহের ব্যাপারে কেন ধর-পাকড়াও করা হবে না? অবশ্যই ধর-পাকড়াও করা হবে। তাফসীরের বর্ণনা করা হয়েছে–অহংকার, বিদ্বেষ, পরশ্রীকাতরতা, কৃপণতা ও দুনিয়ার মোহ প্রভৃতি কোরআন ও হাদিস মতে হারাম। এগুলোর গতি–প্রকৃতি, উৎপত্তির কারণ ও অপকারিতা এবং সেগুলো থেকে বেঁচে থাকার নিয়ম–নীতি জেনে রাখা সকল মুসলমান নর-নারীর প্রতি ফরয।এ সকল বিষয়ের ওপরই হলো ইলমে তাসাওফের আসল ভিত্তি,যা ফরযে আইন। রাসূলে কারীম (সাঃ) এরশাদ করেন–জেনে রেখ! মানুষের শরীরের মধ্যে এক টুকরা গোশত রয়েছে যখন তা ভালো হয়ে যায়, তখন সমস্ত শরীর ভালো হয়ে যায়। আর যখন তা নষ্ট হয়ে যায়, তখন সম্পূর্ণ শরীর নষ্ট হয়ে যায়। আর উহাই হল ক্বলব।(বুখারী মুসলিম, তিরমিজি ও নাসায়ী)
হাদীস শরীফে বর্ণিত আছে —প্রত্যেকটি বস্তুর পরিষ্কার করার একটি যন্ত্র আছে। আর অন্তর পরিষ্কার করার যন্ত্র হলো আল্লাহ তায়ালার জিকির।(মিশকাত শরীফ, ১৯৯ পৃঃ) তাই আমরা সব সময় আল্লাহ তাআলার জিকিরে মশগুল থাকবো। তাওফিকি ইল্লা বিল্লাহ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা