1. admin@dailyalokitoprovat.com : admin :
শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ০২:৩০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
নবাগত ওসির সাথে রুহিয়া থানা প্রেসক্লাবের সদস্যদের সৌজন্য সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় সভা। একজন তরুণ হাফেজের বেঁচে থাকার জন্য আর্থিক সাহায্যের আকুল আবেদন। ঝালকাঠিতে গ্রামীন ব্যাংকের ব্রাঞ্চ ম্যানেজার’র দূর্নীতির মামলায় ১০বছরের কারাদন্ড। তালতলী ইউপি নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থীর বিজয়। কাহালুতে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে, বিনামূল্য সার বীজ বিতারন। জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সাহিত্য সম্মেলন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে লেখক হিসেবে সম্মাননা ক্রেস্ট পেল সাংবাদিক বাচ্চু। কেশবপুরের বাঁশবাড়িয়া বাজার পরিচালনা কমিটির নির্বাচন সম্পন্ন। নেত্রকোনার সুলতানকে দেখতে মানুষের ভিড়। জন্মনিবন্ধন সনদে অতিরিক্ত টাকা আদায়,সুবিদপুর উদ্যোক্তার সাথে স্থানীয় জনতার হাতাহাতি। কাহালুতে প্রাণী সম্পদ অফিসে খামারীদের মধ্যে গরু,ছাগল বিতরণ।

আগুন জ্বালিয়ে দরিদ্রদের শীত নিবারনের চেষ্টা।

দৈনিক আলোকিত প্রভাত
  • আপডেট সময় : সোমবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৬১ বার পঠিত

পলাশবাড়ী (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি।
পলাশবাড়ীতে শীতের তীব্রতা বৃদ্ধি! বইছে পশ্চিমা কনকনে হিমেল বাতাস ও কুয়াশার কারণে এখন শীতে কাঁপছে উত্তরের গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলা। দু’দিন থেকে হঠাৎ করেই তীব্র কুয়াশা পড়তে শুরু করে। সারাদিন আকাশ মেঘাচ্ছন্ন ও আর সূর্যের উঁকিঝুঁকি আবাস দিচ্ছে শীতের তীব্রতা বৃদ্ধির। তাপমাত্রা দিনের বেলা ২০ থেকে ২৪ ডিগ্রী সেলসিয়াসে থাকলেও রাতে তা নেমে আসে ১৪ ডিগ্রীর নীচে। সেই সাথে হিমেল হাওয়া বইতে থাকে। শীতের কারণে গোটা উপজেলার গরীব মানুষ গরম কাপড়ের অভাবে কাহিল হয়ে পড়েছে। তীব্র শীতের কারণে সন্ধ্যার পর থেকেই রাস্তায় লোক চলাচল কমে যায়। শীতের কবল থেকে বাঁচতে পুরাতন কাপড়ের দোকানগুলোতে মানুষের উপচে পড়া ভীড় লক্ষ্য করা গেছে।

সরেজমিন রবিবার সন্ধ্যায় পৌরশহরের চৌমাথাসহ বিভিন্ন স্থানে ঘুরে দেখা যায়, অনেকেই রাস্তার ধারে আগুন লাগিয়ে শীত নিবারনের চেষ্টা করছে। এসময় রাস্তা দিয়ে চলাচলরত রিক্সা-ভ্যান চালক, শ্রমিকসহ অনেকেই থেমে হাত-পা ছেঁকে গরম করে আবারও গন্তব্যের স্থলে রওনা দিচ্ছেন। এমন পরিস্থিতিতে ছিন্নমূলসহ অসহায় দরিদ্ররা পড়েছেন মহাবিপাকে। এমনিতেই দ্রব্যমূল্যের উর্দ্ধগতির কারণে মধ্যবিত্তসহ দরিদ্রদের ত্রাহি অবস্থা। এমন পরিস্থিতিতে তীব্র শীতের কারণে পরিবার-পরিজন নিয়ে পড়েছেন আরও মহাবিপাকে। ফলে অর্থাভাবে দরিদ্র মানুষদের পক্ষে শীতের কাপড় সংগ্রহ করা খুব কষ্টসাধ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক রিক্সা চালক দৈনিক আলোকিত সকাল ও মতপ্রকাশ পত্রিকার প্রতিনিধিকে বলেন, গত দুইদিন থেকে রাতে রিক্সা চালানোর সময় হাত-পা ঠান্ডা হয়ে আসে। তাই যেখানে একটু দেখি আগুন লাগানো হয়েছে সেখানে একটু দাঁড়িয়ে হাত-পা গুলো গরম করে আবার রিক্সা চালানো শুরু করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা