1. admin@dailyalokitoprovat.com : admin :
শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ০৩:৪৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
কেশবপুরের মঙ্গলকোটে রংধনু আর্ট একাডেমির শুভ উদ্বোধন। বাকেরগঞ্জের এসিলেন্ট আবুজর মোঃ ইজাজুল হকের কারিশমায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ। বসতঘর থেকে কলেজ-ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার। রাজশাহীর মোহনপুরে প্রাইভেটকার ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ। কাহালু’র দূর্গাপুর ইউ পি নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত। প্রেমিক’র বিয়ের খবরে প্রেমিকার আত্নহত্যা । কাহালু উপজেলা চেয়ারম্যান সুরুজকে ফুলেল শুভেচ্ছা বিনিময়। হাইওয়ে যেন মরন ফাঁদ সাধারণ মানুষ হচ্ছে দুর্ঘটনার শিকার। নেত্রকোনার মগড়া নদীতে ভেসে আসা মাথাবিহীন লাশ উদ্ধার। চুকনগর বধ্যভূমি পরিদর্শন করেন ভারতীয় হাইকমিশনার শ্রী বিক্রম দ্রোয়াস্বামী।

উজিরপুর সেই কথিত ডাক্তার রেজাউলের নামে স্ত্রীর মামলা।

দৈনিক আলোকিত প্রভাত
  • আপডেট সময় : বুধবার, ২৫ আগস্ট, ২০২১
  • ৭২ বার পঠিত

উজিরপুর প্রতিনিধি ঃ
বরিশালের উজিরপুর উপজেলার পশ্চিম সাতলা গ্রামের অবৈধভাবে প্রতিষ্ঠিত “মায়ের দোয়া ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে মালিক ও জাল কাগজপত্র সৃষ্টি করে ভুয়া ডাক্তার হিসাবে বহুল পরিচিত সেই রেজাউল করিমের নামে যৌতুক দাবী ও নারী নির্যাতনের অভিযোগ এনে তার স্ত্রী লাইজু বেগম স্ব শরিরে বুধবার উজিরপুর মডেল থানায় হাজির হয়ে এজাহার দাখিল করেছেন। লাইজু বেগম তার লিখিত এজাহারের অভিযোগে বলেছেন পশ্চিম সাতলা গ্রামের মৃত আদম আলী সরদারের ছেলে ভুয়া ডাক্তার রেজাউল করিমের সাথে তার ১৭ বছর আগে সামাজিক ভাবে বিবাহ হয়, তখন তাকে নগদ ৫ লক্ষ টাকা যৌতুক দেয়া হয়, এরপরে ক্লিনিক করার সময় লাইজু বেগমকে ভয় ভিতি দেখিয়ে নগদ ১০ লক্ষ টাকা যৌতুক বাবদ তার পিত্রালয় থেকে এনে দিতে বাধ্য করে৷ ইতিমধ্যে তাদের সংশারে দুটি ছেলে মেয়ে জন্ম নিলে সংশার ও ছেলে মেয়ের কথা চিন্তা করে স্ত্রীর উপর সকল অত্যাচার নির্যাতন মুখ বুঝে সহ্য করতো। এরপরে ক্লিনিক চালু হওয়ার পরে চাকুরির সুবাদে নিয়োগপ্রাপ্ত সকল সেবিকাদের (নার্স) সাথেই জোর পুর্বক অবৈধভাবে রেজাউল শারিরিক সম্পর্ক করতো। এতে বাধা দিলে বা প্রতিবাদ করলে সে স্ত্রীকে রোগীদের সামনেই মারধর করতো৷ ২০২০ সালে ক্লিনিকে ভর্তি থাকা এক রোগীর সাথে থাকা এক নারীকে জোর পুর্বক ধর্ষন করতে গিয়ে সে ধরা পরে এবং সেই নারী মামলা করলে রেজাউল গ্রেফতারও হয়েছিলো। এছারা লম্পট রেজাউলের নামে একাধিক নারীকে, রোগীদের নারী স্বজনদেরকে ধর্ষন ও শ্লীলতা হানীর অনেক অভিযোগ এবং চিকিৎসা না জেনে রোগীদের অপচিকিৎসা দিয়ে ক্ষতিগ্রস্থ করার একাধিক অভিযোগ রয়েছে রেজাউলের বিরুদ্ধে৷ লাইজু বেগম তার এজাহারে আরো উল্লেখ করেছেন যে গত ২০ আগষ্ট যৌতুক বাবদ পিত্রালয় থেকে আরো নগদ ৫ লক্ষ টাকা এনে দিতে হবে, টাকা না আনলে তাকে হাত পা ভেঙ্গে পঙ্গু বানিয়ে তালাক দিয়ে অন্য নারীকে বিবাহ করিবে। স্ত্রী লাইজু বেগম টাকা এনে দিতে অপারগতা প্রকাশ করিলে একটি ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে লাইজুকে পিটিয়ে শরিরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে৷ পরে সে বিভিন্ন উপায় পালিয়ে এসে বুধবার রেজাউলের নামে উজিরপুর মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দাখিল করে। উজিরপুর থানার ডিউটি অফিসার এ এস আই প্রদীপ এজাহার দাখিলের সত্যতা স্বীকার করে বলেন লাইজু বেগম একটি এজাহার দাখিল করেছেন, কিন্তু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দাপ্তরিক কাজে পুলিশ সুপারের অফিসে থাকায় এখনো কোন সিদ্ধান্ত হয় নাই। থানার ওসি আলী আর্শাদ টেলিফোনে এই প্রতিবেদককে বলেন আমি সারাদিন বরিশালে দাপ্তরিক কাজে ব্যাস্ত আছি, রাতে থানায় ফিরে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে। উল্লেখ্য যে কোটালীপাড়ার এক রোগীকে তার ক্লিনিকে ভর্তি করে অপচিকিৎসা করে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়ার কারনে গত ৫ আগষ্ট কোটালীপাড়া উপজেলার বালিয়াভাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনে ওই এলাকার কিছু বিক্ষুব্ধ জনতা রেজাউলকে ধরে গন ধোলাই দিয়েছিলো। এছারা তার ওই অবৈধ মায়েদোয়া ক্লিনিকটি সিলগালা করে দেয়ার জন্য ২০২০ সালে বরিশালের সিভিল সার্জন মনোয়ার হোসাইল একটি পরিপত্র জারি করেছিলেন, কিন্তু কোন এক অদৃশ্য শক্তির বলে সরকারী কোন কর্তৃপক্ষ ওই ক্লিনিক সিলগালা করতে উদ্দোগ গ্রহন করে নাই। অবৈধ মায়েরদোয়া ক্লিনিকে অপচিকিৎসা নিয়ে ক্ষতিগ্রস্থ ভুক্তভোগীরা ভুয়া ডাক্তার রেজাউলকে গ্রেফতার পু্র্বক ওই ক্লিনিক সিলগালা করে দেবার জোর দাবী জানিয়েছে প্রশাসনের কাছে। এ বিষয়ে অভিযুক্ত রেজাউলে সাথে জানতে চাইলে তিন পারিবারিক বিষয়ে বলে জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা