1. admin@dailyalokitoprovat.com : admin :
শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ০৯:২২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
রাজশাহীর মোহনপুরে প্রাইভেটকার ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ। কাহালু’র দূর্গাপুর ইউ পি নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত। প্রেমিক’র বিয়ের খবরে প্রেমিকার আত্নহত্যা । কাহালু উপজেলা চেয়ারম্যান সুরুজকে ফুলেল শুভেচ্ছা বিনিময়। হাইওয়ে যেন মরন ফাঁদ সাধারণ মানুষ হচ্ছে দুর্ঘটনার শিকার। নেত্রকোনার মগড়া নদীতে ভেসে আসা মাথাবিহীন লাশ উদ্ধার। চুকনগর বধ্যভূমি পরিদর্শন করেন ভারতীয় হাইকমিশনার শ্রী বিক্রম দ্রোয়াস্বামী। সয়াবিনের বাম্পার ফলন হওয়ার পরেও, কৃষকের মাথায় হাত। তালতলীতে নৌকা মার্কার প্রার্থী সংবাদ সম্মেলন। একটি দৃষ্টি নন্দন সৌন্দর্যময় বিনোদন কেন্দ্র, কল্পনা পিকনিক স্পট।

কঠোর লকডাউনে শিথিল বরিশালের অলি-গলি!

দৈনিক আলোকিত প্রভাত
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই, ২০২১
  • ১২৬ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক :: গত ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগষ্ট পর্যন্ত সরকারি নির্দেশে দেশব্যাপী চলছে সর্বাত্মক কঠোর লকডাউন। করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধ ও সরকারি বিধিনিষেধ মানতে দেশের সব জায়গায় চলছে কঠোর লকডাউন কর্মসূচি। এ কর্মসূচি বাস্তবায়নে মাঠে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে জেলা প্রশাসন, সেনাবাহিনী, পুলিশ ও বিজিবির সদস্যরা।

সরেজমিনে লকডাউনের সংবাদ সংগ্রহে গেলে দেখা যায়, নগরীর বিভিন্ন চেকপোস্ট ও মূল সড়কগুলোতে প্রশাসনের কঠোর নজরদারিতে জনসমাগম ও লোকজনের আনাগোনা খুবই কম। কিন্তু নগরীর বাজারগুলোতে ও অলিগলিতে মানুষের অহেতুক ঘোরাফেরা আড্ডাবাজি চলছে অহরহ।

বিশেষ করে পাড়া-মহল্লার বিভিন্ন অলিগলি ও সাব রোডগুলোর চায়ের দোকানগুলি খোলা থাকায় মানুষের জনসমাগম লক্ষ্য করা যায়। বিভিন্ন জায়গায় অহেতুক বসে থাকা মানুষের সাথে কথা বলে জানা যায়, লকডাউনে তাদের কাজ কাম নাই, ঘরে কতক্ষণ আর বসে থাকবে তাই চা’র দোকানে বসে একটু সময় পার করেন অনেকে। এক লোক বলেন আমি মাহেন্দ্র গাড়ি চালাই কিন্তু ললকডাউনে গাড়ি বন্ধ থাকায় আমার কোন কাজ নাই এখন।

অন্যদিকে নগরীর বাজারগুলোতে মানুষের জনসমাগম ছিল চোখে পড়ার মতো। বিশেষ করে মাছের বাজার ও সবজির বাজারে মানুষের ভিড় ছিল অধিক। মানুষের এই অহেতুক বাজারে ও রাস্তায় ঘোরাফেরার ফলে দিন দিন বেড়েই চলেছে করোনা সংক্রমণ।

জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রতিদিন মোবাইল কোর্ট পরিচালনার মাধ্যমে বিভিন্ন জনকে আর্থিক জরিমানা করা হলেও কমছেনা বাহিরে মানুষের জনসমাগম। স্বাস্থ্যবিধদের মতে বরিশালে প্রতিদিন যে হারে করোনা রোগী বাড়ছে তাতে সবার সচেতন হওয়া খুবই জরুরী। তা না হলে অবস্থা আরো ভয়াবহ রূপ ধারণ করবে। তাই সবার উচিৎ সরকারি নির্দেশনা মেনে লকডাউনের এই সময়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঘরে থাকা।

বরিশালে লকডাউন বাস্তবায়নে দায়িত্বরত কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তার সাথে কথা বললে তারা বলেন, আমরা যথাসাধ্য চেষ্টা করছি মানুষের মাঝে করোনা সচেতনতা বৃদ্ধি করা, স্বাস্থ্যবিধি মানা ও সব জায়গায় মানুষের জনসমাগম প্রতিরোধ করা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা