1. admin@dailyalokitoprovat.com : admin :
শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ০৬:৩৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সয়াবিনের বাম্পার ফলন হওয়ার পরেও, কৃষকের মাথায় হাত। তালতলীতে নৌকা মার্কার প্রার্থী সংবাদ সম্মেলন। একটি দৃষ্টি নন্দন সৌন্দর্যময় বিনোদন কেন্দ্র, কল্পনা পিকনিক স্পট। ঝালকাঠি জেলা কৃষকদলের কমিটি গঠন। নেত্রকোণায় সরকারি জীবন বীমা কর্পোরেশনের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত। কেশবপুরের মঙ্গলকোটে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম-এর ১২৩ তম জন্মজয়ন্তী উদযাপন। কেশবপুরে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সমাবেশ। জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন ২০২২ উপলক্ষে ঝালকাঠিতে সাংবাদিকদের ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা অনুষ্ঠিত। মানবেতর জীবন যাপন করছেন ঠাকুরগাঁওয়ের একতা বুদ্ধি প্রতিবন্ধী স্কুল ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের শিক্ষক কর্মচারীরা। বগুড়ায় র‌্যাবের অভিযানে কাহালুতে নকল স্বর্ণের মূর্তিসহ আটক ২।

চরকাউয়া খেয়াঘাটে সমিতির নামে সভাপতি ও সেক্রেটারির টাকা আত্মসাতের প্রতারণা।

দৈনিক আলোকিত প্রভাত
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২২
  • ২৭ বার পঠিত

রিপন রানা,বরিশাল।
বরিশালে মাঝী মাল্লা সমিতির সভাপতি মোঃ ওমর আলীর বিরুদ্ধে মাঝী মাল্লা নামক সমিতির টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ পাওয়া যায়।কীর্তনখোলা নদীর তীরে অবস্থীত চরকাউয়া খেয়াঘাট। প্রতিদিন এই খেয়াঘাট থেকে হাজার, হাজার যাত্রীদের রৌধ বৃষ্টি গায়ে লাগিয়ে মাঝী মাল্লার চালকরা পারাপার করে থাকে। আর তাদের রয়েছে মাঝীমাল্লা নামক একটি সমিতি।

একটি ট্রলারে দু’জন করে মাঝী মাল্লা থাকে। সকালে একজন মাল্লা ট্রলারে যাত্রী পারাপার করেন। রাতে আরেক জন যাত্রী পারাপার করে থাকেন। এছাড়াও মাঝী মাল্লার সভাপতি ওমর আলী ও সাধারন সম্পাদক সাজ্জাদের বিরুদ্ধে মাল্লাদের কাজ থেকে অতিরিক্ত চাঁদা আদায়। পল্টুন বাবদ চাঁদা আদায়। নতুন কোনো মাল্লা সমিতিতে ডুকলে ফর্ম পূরনের জন্য অতিরিক্ত চাঁদা আদায়, মারধর সহ রয়েছে নানা ধরনের একাধিক অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগ। মাঝী মাল্লা নিজেদের পরিবার ও পরিজনদের সুবিধার্থে, সঞ্চয়ের জন্য মাল্লা সমিতি নামক একটি সমিতি খুলে। ঐ সমিতিতে প্রতিদিন বইতে পঁচিশ টাকা জমা রাখেন। কিন্তু সেখান থেকে পাঁচ টাকা জমা না করে, ক্যাসিয়ার মনির ও কালেকশন ম্যান হিরন হাওলাদার, ও সভাপতি মোঃ ওমর আলীর পকেটে চলে যায়। এক বছরের জন্য করা সমিতিতে প্রতিদিন বিশ টাকা জমা রাখেন মাল্লারা। সেখান থেকেও বছর শেষে বইয়ের টাকা উত্তলন করার সময় বইতে দেখা যায় বিশাল ধরনের একটি অর্থের হিসাবে নয়,ছয়। বছরে ৯১২৫ টাকা জমা হলেও মাঝী মাল্লারা পাচ্ছে ৩ হাজার থেকে ৪ হাজার টাকা। মাঝী মাল্লা সমিতির সভাপতি মোঃ ওমর মিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন, মাঝী মাল্লারা। গত (১৩ এপ্রিল) বুধবার সকালে সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়। মাল্লা সমিতির নামে একটি সংগঠনের আওতাধীন ১৩৪ জন শ্রমিকদের টাকা বুঝিয়ে দেওয়া সময় অভিযোগ করেন মাল্লারা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক মাঝী বলেন, আমাদের সমিতির পাশাপাশি মালিকদের একটি সমিতি আছে। তাদের বছরের পুরো টাকা পাইলে আমরা কেনো পাবো না। ট্রলার যদি চলে তাহলে মাল্লা সমিতি ও মালিক সমিতিতে টাকা জমা হয়। আর যাদি ট্রলার না চলে, তাহলে দুই সমিতির টাকা কম থাকবে, কিন্তু মালিক সমিতির টাকা ঠিক মতো পাইলেও, মাল্লা সমিতির টাকা ওমর মিয়া আত্মসাৎ করে, আমাদের অল্প করে টাকা দিচ্ছে।

এমন অভিযোগ অস্বীকার করে মাঝী মাল্লা সমিতির সভাপতি মোঃ ওমর মিয়া বলেন, এই অভিযোগ মন গড়া, এমন কোনো ঘটনা ঘটেনি, আপনাদের কাছে যাঁরা বলছে তাদের আমিও দেখে নিবো আর যদি পারে আমার কাছে এসে বলুক।

এবিষয়ে মাঝী মাল্লার সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাজ্জাদ হোসেনকে মুঠোফোনে একাধিকবার কল দিলেও সংযোগ বিচ্ছিন্ন পাওয়া যায়।

৭ নং চরকাউয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মনিরুল ইসলাম (ছবি) বলেন, অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করার বিষয়টি আমি শুনছি তবে তাদের বলছি যে সাবেক ভাড়া ২টাকা থেকে ৩ টাকা করে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু এদের সিন্ডিকেটের কাছে সাধারণ মানুষ অসহায়, তাঁরা পাঁচ টাকা করে ভাড়া নিয়েও যাত্রীদের সাথে খারাপ ব্যবহার করে থাকেন।আমি খুব তারাতাড়ি তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা সহ নোটিশ প্রধান করবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা