1. admin@dailyalokitoprovat.com : admin :
শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ০১:৩১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
নবাগত ওসির সাথে রুহিয়া থানা প্রেসক্লাবের সদস্যদের সৌজন্য সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় সভা। একজন তরুণ হাফেজের বেঁচে থাকার জন্য আর্থিক সাহায্যের আকুল আবেদন। ঝালকাঠিতে গ্রামীন ব্যাংকের ব্রাঞ্চ ম্যানেজার’র দূর্নীতির মামলায় ১০বছরের কারাদন্ড। তালতলী ইউপি নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থীর বিজয়। কাহালুতে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে, বিনামূল্য সার বীজ বিতারন। জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সাহিত্য সম্মেলন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে লেখক হিসেবে সম্মাননা ক্রেস্ট পেল সাংবাদিক বাচ্চু। কেশবপুরের বাঁশবাড়িয়া বাজার পরিচালনা কমিটির নির্বাচন সম্পন্ন। নেত্রকোনার সুলতানকে দেখতে মানুষের ভিড়। জন্মনিবন্ধন সনদে অতিরিক্ত টাকা আদায়,সুবিদপুর উদ্যোক্তার সাথে স্থানীয় জনতার হাতাহাতি। কাহালুতে প্রাণী সম্পদ অফিসে খামারীদের মধ্যে গরু,ছাগল বিতরণ।

পিতা মাতা হারা অসহায় তিন বোনের কান্নায় ভারী বরগুনা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মুখ।

দৈনিক আলোকিত প্রভাত
  • আপডেট সময় : বুধবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
  • ৯৭ বার পঠিত

ইত্তিজা হাসান মনির,জেলা প্রতিনিধি বরগুনা।
বরগুনা জেলার বামনা উপজেলার গোলাঘাট গ্রামের মৃত্য আঃ রশীদ হাওলাদারের অসহায় তিন বোনকে পৈত্রিক সম্পদ থেকে বঞ্চিত করেছে চাচাত ভাই শামসুজ্জামান কিসলু সহ অন্যান্যরা। আজ সকাল ৮:০০ ঘটিকা থেকে বরগুনা জেলা প্রশাসক মহোদয়ের কার্যালয়ের সামনে এতিম অসহায় রুবি ও তার দুই বোন জেসমিন ও রোজিনা কাফনের কাপড় পড়ে অনশন শুরু করেন। ২০০৩ সালে বাবা আঃ রশিদ হাওলাদার মৃত্যুর পরে তিন বোন এতিম হয়ে পড়েন পরবর্তীতে তার মা খাদিজা বেগম এক মাত্র ভাই আল আমিন মারা যান । বরগুনা জেলার বামনা উপজেলার উত্তর গোলাঘাট গ্রামের মৃত্য আব্দুর রশিদ হাওলাদারের তিন মেয়ে অসহায় হয়ে নিজেদের জীবন যাপনের জন্য ঢাকা গিয়ে গার্মেন্টসে চাকরি নেন। পরবর্তীতে দীর্ঘ ১৬ বছর পরে নিজ বাড়িতে এসে দেখেন তার চাচা ও চাচাত ভাইয়েরা তাদের পৈত্রিক সম্পত্তি নিলামে উঠিয়ে বেহাত করে ফেলেন। এবং বেদখল হয়ে যায় তাদের বাবার বসত ভিটা। অসহায় তিনবোন সরকারি কর্মকর্তা গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ জনপ্রতিনিধিদের সাথে যোগাযোগ করেও তাদের দাবি আদায় করতে পারেন নি। অসহায় তিন বোন আজ বরগুনা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে কাফনের কাপড় নিয়ে অনশন করেন, বলেন আমরা পাঁচ দফা দাবিতে অনশন শুরু করেছি যত দিন পর্যন্ত আমাদের দাবি মেনে না নেবে আমরা আমাদের দাবি চালিয়ে যাব আমরা আমাদের বসতভিটা ফিরে চাই। আমরা একটি মাথাগোঁজার ঠাঁই চাই আমরা যেন একটি ঘর পাই যেখানে আমরা থাকতে পারি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে দেখা করে আমাদের সমস্যার কথা জানাতে চাই, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে যেন আমরা যেতে পারি সেই ব্যবস্থা আপনারা আমাদের করে দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা