1. admin@dailyalokitoprovat.com : admin :
শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ১০:০২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
রাজশাহীর মোহনপুরে প্রাইভেটকার ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ। কাহালু’র দূর্গাপুর ইউ পি নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত। প্রেমিক’র বিয়ের খবরে প্রেমিকার আত্নহত্যা । কাহালু উপজেলা চেয়ারম্যান সুরুজকে ফুলেল শুভেচ্ছা বিনিময়। হাইওয়ে যেন মরন ফাঁদ সাধারণ মানুষ হচ্ছে দুর্ঘটনার শিকার। নেত্রকোনার মগড়া নদীতে ভেসে আসা মাথাবিহীন লাশ উদ্ধার। চুকনগর বধ্যভূমি পরিদর্শন করেন ভারতীয় হাইকমিশনার শ্রী বিক্রম দ্রোয়াস্বামী। সয়াবিনের বাম্পার ফলন হওয়ার পরেও, কৃষকের মাথায় হাত। তালতলীতে নৌকা মার্কার প্রার্থী সংবাদ সম্মেলন। একটি দৃষ্টি নন্দন সৌন্দর্যময় বিনোদন কেন্দ্র, কল্পনা পিকনিক স্পট।

বরিশালের মেয়ে গাজীপুর থেকে নিখোঁজ

দৈনিক আলোকিত প্রভাত
  • আপডেট সময় : বুধবার, ২৫ আগস্ট, ২০২১
  • ২২৩ বার পঠিত

শহিদুল ইসলাম,
গাজীপুর থেকে আছমা আক্তার (২৫) নামের এক গৃহবধূ ১২ দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছেন। গত ১৪ আগস্ট শনিবার বাসা থেকে বের হলে তার আর কোনো হদিস পাওয়া যায়নি।এ ঘটনায় মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) সকালে গৃহবধূর স্বামী মোঃ শামীম হোসেন আশুলিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।যার নং ১৬২২

আছমা ও শামীম ঢাকা আশুলিয়া ধলপুর এলাকার সিহাব মিয়ার ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন।তাদের দাম্পত্য জীবনে একটি সন্তান হলেও তা বেচে নেই। পরিবার সুত্রে জানা যায়,স্বামী সাথে রাগারাগি করে আছমা আক্তার গত (১৩ আগস্ট) শুক্রবার বিকাল ৪ টার দিকে গাজীপুর বোনের বাসায় যান।

এর পর রাতে স্ত্রী আছমার সাথে ফোনে কথা বলে অভিমান ভাঙ্গানোর চেষ্টা করেন শামীম, এ সময় বোনেও বুজিয়ে বলে। এক পর্যায়ে স্বামীকে বলে কয়দিন পর বোনের বাসায় থেকে তার পর বাসায় ফিরবো
বোন গার্মেন্টসে চাকরী করে,শনিবার সকাল বেলা অফিসে গেলে এই ফাকে আছমা বাসা থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হন।

১২ দিন যাবত কোনো খোঁজ না পাওয়ায় থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন তার স্বামী শামীম হোসেন।এ বিষয়ে শামীম বলেন,আমরা প্রায় ৭ বছর এক সাথে সংসার করেছি,এবং চাকরীও করেছি একসাথে, সুন্দর ভাবেই চলছিলো আমাদের সাজানো ঘর।অথচ কোনোদিন ঝগড়া নয়, বা পারিবারিক কোলাহল ছিলো না আমাদের মাঝে।তার পরও কি হলো হলো তা বুজতে পারছি না

তবে তিনি আরও জানান,আছমা ফেইসবুক, ইমু চালাতো এবং মনির নামে এক লোকের সাথে চ্যাটিং করার প্রমান পেয়েছেন তিনি, এমন কি তাদের একে অপরের সাথে ছবি আদান প্রদান করেছেন মোবাইলের মাধ্যমে। বর্তমানে তারা একসাথে থাকতে পারে বলে শামীম হোসেন জানান।

১৩ আগস্ট বাসা থেকে নগত ২২ হাজার টাকা ও স্বর্গঅলংকার নিয়ে যায় আছমা।এ সময় তিনি আরও জানান,কয়দিন যাবত আছমাকে ঢাকার সম্ভাব্য সকল জায়গায় খোঁজাখুজি করেছি। কোথায় তার কোনো খোঁজ পাইনি। এতে শামীম অনেক ভেঙে পরেছেন। স্ত্রী আছমাকে ফিরে আশার আহবান জানান।

এবং সব কিছু ভুলে পূনরায় সংসার করবেন বলে তিনি এই প্রতিবেদক জানিয়েছন।আছমা আক্তারের গ্রামের বাড়ি ঝালকাঠি জেলার নলছিটি থানা তেওলা গ্রামের রুস্তম আলীর ছোট মেয়ে। এদিকে আছমার ছোট দুলা ভাই জাহিদ হাসান বরিশালের গ্রামের বাড়িতে খোঁজা খুজি করে তার কোন সন্ধান পাননি।এমতাবস্থায়, যদি কেউ তাদের সন্ধান দিতে পারেন তাদেরকে পুরস্কৃত করা হবে। এবং এই নম্বরে ০১৩০৯৯৬৬৯১৩ যোগাযোগ করতে বলা হলো

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা