মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০২:১২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
Logo বরিশাল নৌ-বন্দরে সুমনের চাঁদাবাজি বন্ধের দাবিতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ। Logo সময় টিভির পরিচয় দানকারী,বাকেরগন্জেে’র প্রতারক বিশ্বজিৎ কর্মকার আটক। Logo অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন অভিনেত্রী তানিন সুবাহ। Logo চুরির অপবাদ দিয়ে কৃষকের হাত-পা ভেঙ্গে দেয়ার অভিযোগ। Logo আজ মধ্যরাত থেকে সমুদ্রে মাছ ধরবে জেলেরা। Logo বাকেরগঞ্জের হাট-বাজারে অবৈধ পলিথিনের জমজমাট ব্যবসা। Logo টুঙ্গিপাড়ার দুঃসাহসী খোকা’ চলচ্চিত্রে চুক্তিবদ্ধ হলেন নিরব। Logo নিয়ামতি ইউনিয়নে ক্ষমতাসীন দলের একাধিক প্রার্থী, হাত পাখার বাতাস লেগেছে ভোটারদের অন্তরে। Logo আসছে মজুমদার ফিল্মস’র এক সমুদ্র ভালোবাসা। Logo কুয়াকাটার মাদ্রাসার ছাত্রীকে উত্যক্ত করা, দুই যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

মানবিক ছাত্রনেতা হাসানুজ্জামান অমি গাজী।

দৈনিক আলোকিত প্রভাত / ১০৮ বার পঠিত
আপডেট সময় : শুক্রবার, ৩০ জুলাই, ২০২১, ৫:২০ অপরাহ্ণ

কলাপাড়া প্রতিনিধি::বলছি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কলাপাড়া সরকারি এমবি কলেজ শাখার সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান অমি গাজীর কথা। করোনা আতঙ্কে লকডাউনে যেখানে সারাদেশের মতো উপক‚লীয় পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার মানুষ গৃহবন্দি, ঠিক সেই সময়ে তাঁদের সহায়তায় এগিয়ে এসেছে মোজাহার উদ্দিন বিশ্বাস কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লকডাউনের কারণে কর্মহীন মানুষকে সরকার চাল, ডাল ত্রাণ সহায়তা দিলেও প্রতিদিন কাঁচাবাজারে পণ্য কিনতে গিয়ে ভিড় করছে সর্বস্তরের মানুষ। এতে যেমন সামাজিক দূরত্ব মানা হচ্ছে না, তেমনি করোনার ঝুঁকি বাড়ছে। তাই করোনার ঝুঁকি থেকে মানুষকে রক্ষার জন্য এ মানবতার বাজার খুলেছে কলাপাড়ার কলেজ ছাত্রলীগ এর সাধারণ সম্পাদক সংগঠনের নেতা কর্মী দের সাথেনিয়ে এগিয়ে এসেছে মানুষের পাশে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সবজি বাজারের পণ্য সংগ্রহকারীরা কেউ ভিক্ষুক, কেউবা রিকশা চালক, দিনমজুর। কর্মহীন শ্রমিক পরিবারের গৃহিনী ও শিশুরাও আসছে এ মানবতার বাজারে সবজি নিতে।

সবজি নিতে আসা মানুষরা জানান, কাজ নেই। রাস্তায় গাড়ি চলে না। টাকার অভাবে সরকারি ত্রাণ সহায়তার ডাল, আলু দিয়েই চলে প্রতিদিনের আহার। ছাত্ররা তাদের এ কাঁচা বাজারে সবজি দেয়ায় খুশি। একদিনের বাজারে অন্তত তিনদিন তাদের চলে যায়। বৃদ্ধ খালেক মিয়া যানান অমি গাজী সুধু করোনা কালিন সময় না সব আমাদের পাশে দাঁড়ান পবিত্র ঈদুল ফিতরে, ঈদুল আযহা,বা পরিবার অভাব অনটন আমরা কখনো তার কাছে এসে খালি হাতে ফিরিনি।
নয় বছরের রুবিনার ভবিষৎ এখন কুয়াশার মতো ধোঁয়াশা। পলিথিন ও তালপাতার ছোট্র ঝুপড়ি ঘর তার। এই ঘরে শুয়ে চাঁদের আলো, বৃষ্টির প্রথম স্পর্শ তাকে উপভোগ করতে হয় প্রতিরাতেই। আর বিদ্যুত না থাকায় অমাবশ্যার অন্ধকার তার নিত্য সঙ্গী।
সেই ঘরে শিকল বন্দী তার মা, মানসিক ভারসাম্যহীন খালা ও সত্তোরোর্ধ নানীর পাশে,দাঁড়ান তিনি। তার এসব ভূমিকা প্রশংসিত হয় সর্ব মহলে নিউজ হয়,প্রথম সারির একাধিক গণমাধ্যমে, তাদের এই মানবিক কর্মকান্ডের ভিডিও শেয়ার করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ভেরিফাইড পেইজে থেকে ধন্যবাদ দেওয়া হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

Theme Customized By Theme Park BD